শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৮ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ একুশে পদক হাতে তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুক্রবার একুশে পদক মেধা ও মনন চর্চার ক্ষেত্র সম্প্রসারিত করবে : রাষ্ট্রপতি আজ একুশে পদক প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী এনামুল বাছিরের পদোন্নতির আবেদন হাইকোর্টে খারিজ জাপানের সঙ্গে জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সুস্থ যুব সমাজের বিকল্প নেই : প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ ডাকঘর সঞ্চয়ের সুদহার পুনর্বিবেচনা করা হবে : অর্থমন্ত্রী মুঠোফোন প্রতারক জিনের বাদশা গ্রেফতার করোনাভাইরাস নিয়ে গুজবে কান দিবেন না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাগর তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও না করলে দেশ আরো এগিয়ে যেত : তথ্যমন্ত্রী শহীদ দিবসে জঙ্গি হামলার কোনো সম্ভাবনা নেই : ডিএমপি কমিশনার দেশে ব্রয়লারসহ কোন পশু-পাখির মধ্যে করোনা পাওয়া যায়নি : আইইডিসিআর
১৩২

খালেদাকে খোলা চিঠি, রুমিন ফারহানার চোখে শামা ওবায়েদের আঙ্গুল

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে খোলা চিঠি লিখে আলোচনায় এসেছেন দলটির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রুমিন ফারহানা। শুধু আলোচনায় নয়, তাকে সমালোচনার মুখোমুখিও হতে হচ্ছে দলের অভ্যন্তরে। সমালোচনার প্রথম সারিতে আছেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ।

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের এমপি রুমিন ফারহানা খালেদা জিয়ার উদ্দেশে খোলা চিঠি লিখেন। সে চিঠিটি একটি ব্লগে প্রকাশিত হলে ওইদিন সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে বিএনপির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে শেয়ার করা হয়। এর কয়েক মিনিটের মধ্যে শামা ওবায়েদ তির্যক কমেন্ট করেন ওই পোস্টে। তিনি লিখেন, ‘ইট ইজ ইজি টু রাইট ‘খোলা চিঠি’ অ্যান্ড টক ইন শো’স বাট ইট ইজ ডিফিকাল্ট টু বি অন দ্য স্ট্রিটস’ অর্থাৎ- খোলা চিঠি লেখা এবং টকশোতে কথা বলা সহজ, কিন্তু রাজপথে থাকা কঠিন।

রুমিন ফারহানা কারাগারের জীবনের প্রতি দুঃখপ্রকাশ করে চিঠির শেষ দিকে লিখেন, এতবড় দল আপনার, কিন্তু দুই বছরের বেশি জেলে থাকার পরও সেই বিশাল দল আপনাকে মুক্ত করতে পারলো না, এটা ভেবে কি আপনার মনে কষ্ট হয় খুব? আপনার এই দুর্দিনে আমাদের দায়িত্ব আমরা যথাযথভাবে পালন করতে পারিনি—এই অপরাধবোধ আমাকে তাড়া করে বেড়ায় প্রতিটা মুহূর্তে।

রুমিন ফারহানার চিঠিটি বিএনপির ফেসবুক পেজে শেয়ারের পর নেতাকর্মীরাও আগ্রহ নিয়ে বিভিন্ন কমেন্ট করছেন। সেখানেই রুমিনকে টিপ্পনী করে কমেন্ট করেন শামা ওবায়েদ। কমেন্টের বিষয়ে জানতে চাইলে শামা ওবায়েদ বলেন, ‘এটা একটা ব্যক্তিগত মতামত। এর বেশি তো কিছু বলার নেই এখানে।’

এ বিষয়ে রুমিন ফারহানা বলেন, সবার মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে। সবাই যার-যার রুচি-পছন্দ, পারিবারিক শিক্ষা, রাজনৈতিক জ্ঞান ও প্রজ্ঞা দিয়ে নিশ্চয়ই তার মত প্রকাশ করবে। আমি সব মতামতকে স্বাগত জানাই।

অনুমান করা হচ্ছে- বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনে শামা ওবায়েদের নাম জোরেসোরে আলোচনা হলেও শেষ পর্যন্ত তা বাগিয়ে নেয় রুমিন ফারহানা। সেখান থেকেই তিনি তার বিরুদ্ধে তৎপর।

এই বিভাগের আরো খবর