রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বিজয় দিবসে আসছে সাবিনা ইয়াসমিনের গান নারীর ক্ষমতায়নে বিস্ময়কর রেকর্ড হাত থেকে কোরআন পড়ে গেলে করণীয় সানিয়া মির্জার বোনের বিয়েতে বসেছিল চাঁদের হাট! বিএনপির ঘাড়ে ভর করেছে বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের প্রেতাত্মা ‘বোরকা পরে বাংলাদেশ থেকে এসেছি’ বিজেপি এমপির টুইটে ভারতে তোলপাড় বন্দে আলী মিয়ার জন্ম ‘২ ঘণ্টার মধ্যে উড়ে যাবে সালমান খানের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট!’ গরুর খামারে কম্বল দান করলেই মিলবে বন্দুকের লাইসেন্স! আজ প্রকাশ হবে রাজাকারদের তালিকা সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ খুঁজছেন ব্রিটেনের রানি শামীমের ৩৬৫ কোটি টাকা, খালেদের ৩৪, সম্রাটের ‘তেমন নেই’ মাকাসিদুশ শরিয়া তত্ত্বের প্রয়োগ ও অপপ্রয়োগ লড়েছেন মোসাদ্দেক, জিতেছে ঢাকা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মকে সচেতন থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে-প্রধানমন্ত্রী বরিশালে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত বরিস জনসনকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন আগৈলঝাড়ায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত বুদ্ধিজীবী দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
১১

ক্যান্সারজয়ী মনীষা কৈরালা এখন অন্যদেরও প্রেরণা

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০১৯  

ক্যান্সারজয়ী মনীষা কৈরালা এখন অন্যদেরও প্রেরণা

 

 রোববার (১ ডিসেম্বর) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দু’টি ছবির একটি কোলাজ শেয়ার করেন মনীষা কৈরালা। কোলাজে দেখা যায়, প্রথম ছবিতে মনীষা হাসপাতালের শয্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। আর দ্বিতীয় ছবিতে এক পর্বতচূড়ায় আরোহণ করেছেন তিনি। ২০১২ সালের নভেম্বরে তার জরায়ুতে ক্যান্সার ধরা পড়ে। এরপর তিনি ৭ বছর লড়েছেন ক্যান্সারের সঙ্গে। এবার তিনি টুইটারে দু’টি ছবি শেয়ার করে ঘোষণা দিলেন, হ্যাঁ তিনি জয় করেছেন। বহু দুর্গম পথ পাড়ি দিয়ে ক্যান্সারকে জয় করে এখন অন্য ক্যান্সার রোগীদের প্রেরণা দিচ্ছেন বলিউড অঙ্গনের নেপালী অভিনেত্রী মনীষা কৈরালা। 

কোলাজের সঙ্গে মনীষা লেখেন, ‘জীবনে বেঁচে থাকার দ্বিতীয় সুযোগের জন্য বন্ধুদের কাছে চিরকাল কৃতজ্ঞ। এটা সত্যিই এক বিস্ময়কর জীবন; আনন্দ ও সুস্বাস্থ্য নিয়ে বেঁচে থাকার দারুণ সুযোগ।’ 

মরণঘাতী ক্যান্সার জয় করার পর মনীষা তার স্মৃতিকথা নিয়ে ছোট আত্মজীবনী প্রকাশ করেছেন। এর নাম ‘হিলড: হাউ ক্যান্সার গেভ মি অ্যা নিউ লাইফ’। বইটিতে তিনি আলোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রে কীভাবে তার চিকিৎসা হয়েছে, অনকোলোজিস্টরা তার কেমন যত্ন নিয়েছেন এবং কীভাবে তিনি তার জীবনকে নতুন করে ঢেলে সাজিয়েছেন। 

শুধু তাই নয়। ক্যান্সারকে তার জীবনের একটি উপহার হিসেবে বিবেচনা করেন মনীষা। তিনি বলেন, আমি মনে করি আমার জীবনে একটি উপহার হিসেবে ক্যান্সার এসেছিল। এখন আমার দৃষ্টি আরও তীক্ষ্ণ, আমার মন আরও পরিষ্কার, আমার দৃষ্টিভঙ্গি আরও নতুন ও উন্নত। আমার চাপা-বিধ্বংসী ক্রোধ ও উদ্বেগকে শান্তিপূর্ণ অভিব্যক্তি হিসেবে রূপান্তর করতে পেরেছি।

ক্যান্সারজয়ী মনীষা ইতোমধ্যে চলচ্চিত্রে ফিরেছেন। নেটফ্লিক্সের ‘লাস্ট স্টোরিস’ এবং সম্প্রতি সঞ্জয় দত্তের ‘প্রস্থানম’ সিনেমায় তাকে দেখা গেছে। 

এই বিভাগের আরো খবর