রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বিজয় দিবসে আসছে সাবিনা ইয়াসমিনের গান নারীর ক্ষমতায়নে বিস্ময়কর রেকর্ড হাত থেকে কোরআন পড়ে গেলে করণীয় সানিয়া মির্জার বোনের বিয়েতে বসেছিল চাঁদের হাট! বিএনপির ঘাড়ে ভর করেছে বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের প্রেতাত্মা ‘বোরকা পরে বাংলাদেশ থেকে এসেছি’ বিজেপি এমপির টুইটে ভারতে তোলপাড় বন্দে আলী মিয়ার জন্ম ‘২ ঘণ্টার মধ্যে উড়ে যাবে সালমান খানের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট!’ গরুর খামারে কম্বল দান করলেই মিলবে বন্দুকের লাইসেন্স! আজ প্রকাশ হবে রাজাকারদের তালিকা সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ খুঁজছেন ব্রিটেনের রানি শামীমের ৩৬৫ কোটি টাকা, খালেদের ৩৪, সম্রাটের ‘তেমন নেই’ মাকাসিদুশ শরিয়া তত্ত্বের প্রয়োগ ও অপপ্রয়োগ লড়েছেন মোসাদ্দেক, জিতেছে ঢাকা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মকে সচেতন থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে-প্রধানমন্ত্রী বরিশালে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত বরিস জনসনকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন আগৈলঝাড়ায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত বুদ্ধিজীবী দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
৬৭

কাঁচা মাংস ভক্ষণকারীর মস্তিষ্ক-বুকে মিললো ৭শ’ ফিতাকৃমি!

প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর ২০১৯  

পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্যবিধি জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। এসবের অভাবে যে কোনো সময় বিপন্ন হতে পারে যে কারো জীবন। 

প্রায়ই মানুষের শরীরে নখ, সূচ, পয়সাসহ অস্বাভাবিক বিভিন্ন জিনিসের সন্ধান পান চিকিৎসকরা। কিন্তু সম্প্রতি চীনে এক ব্যক্তির শরীরে এমন কিছু মিলেছে যা শুনলে পাঠক শিউরে উঠবেন। 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, কিছুদিন আগে প্রচণ্ড মাথা ও বুক ব্যথায় আক্রান্ত হন ঝু ঝং-ফা নামে পূর্ব চীনের হাংঝু অঞ্চলের ৪৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তি। প্রায় মাসখানেক ওই অবস্থা চলতে থাকলে শেষমেশ নিরুপায় হয়ে ঝেজিয়াং প্রদেশের চিকিৎসক ওয়াং জিয়ান-রং-এর শরণাপন্ন হন ঝু ঝং-ফা।     

ওই ব্যক্তি ভাবতেও পারেননি যে এই হাসপাতালে যাওয়া তার জীবনে সবচেয়ে বড় ধাক্কা বয়ে আনবে। প্রাথমিক স্বাস্থ্যপরীক্ষায় ভয়াবহ এক তথ্য বেরিয়ে আসে। জানা যায়, ঝু ঝন ব্যাপকমাত্রায় পরজীবী ফিতাকৃমিবাহিত টাইনায়াসিস রোগে ভুগছেন।

পরবর্তীতে রোগীর সারা শরীরে পরীক্ষা চালিয়ে দেখা যায়, তার মস্তিষ্ক, বুক ও ফুসফুসে বিপুল পরিমাণ ফিতাকৃমি বাসা বেঁধেছে।
   
চীনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম পিয়ার-এ এক সাক্ষাৎকারে চিকিৎসক ওয়াং বলেন, ঝু ঝং-ফা’র  মস্তিষ্ক, বুক ও ফুসফুসে ৭শ’ ফিতাকৃমি পাওয়া গেছে। তার মস্তিষ্কে কৃমিজনিত ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। বিপুল পরিমাণ কৃমিতে ভরে গেছে ফুসফুস ও বুকের পেশী। তার বেশিরভাগ অঙ্গপ্রত্যঙ্গেই ফিতাকৃমির সংক্রমণ ঘটেছে। 

চিকিৎসক জানান, কাঁচা মাংস খাওয়ার ফলেই ব্যাপক মাত্রায় এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ঝু ঝং-ফা। তিনি মাংস খাওয়ার সময় কোনোভাবে কৃমির জীবন্ত ডিম থেকে  গিয়েছিল। তা থেকেই এ সংক্রমণ হয়। কেউ যদি কাঁচা মাংস খায়, তবে তার শরীরে ফিতাকৃমি প্রবেশ করে ভিন্ন রকম অসুখ তৈরি করতে পারে।  

এই বিভাগের আরো খবর