শুক্রবার   ১৭ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৪ ১৪২৬   ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আদালতে মজনুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাউন্ড সিস্টেমে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা যাবে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি শুরু ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের সনদ ১৯ জানুয়ারি প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ২৫ জানুয়ারি থেকে এক মাস কোচিং সেন্টার বন্ধ আমরা ক্রসফায়ারকে সাপোর্ট করতে পারি না : ওবায়দুল কাদের পোশাক রপ্তানিকে ছাড়িয়ে যাবে আইসিটি : জয় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু কাল বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্বে ময়দানে আসতে শুরু করেছেন মুসল্লিরা অন্ধকার ভেদ করে আলোর পথে বাংলাদেশ: সংসদে প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : দুই আসামি জামিনে মুক্ত মেয়র সাদিকের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজি করে র‌্যাবের জালে ২ প্রতারক দুর্নীতি মামলা : বিএনপি প্রার্থী ইশরাকের বিচার শুরু বরিশালে সড়কের জায়গায় অনুমোদনহীন ভবন উচ্ছেদে বিসিসি কাদেরের বাইপাস পরবর্তী স্বাস্থ্যের উন্নতি, দেশে ফিরছেন রাতেই  এসডিজি অর্জনে বাংলাদেশ সঠিক পথে রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী আবুধাবি থেকে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী সরকারের জনপ্রিয়তা অনেক বেড়েছে: আইআরআই ওমানের সুলতানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোকবার্তা
৪৪১

কবর থেকে জীবিত শিশু উদ্ধার!

প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০১৯  

নিজের মৃত শিশুকে দাফন করতে কবর খুঁড়তে গিয়ে তিন ফুট মাটির ভেতর থেকে আরেক জীবিত শিশুকে উদ্ধার করেছেন ভারতের উত্তরপ্রদেশের এক ব্যবসায়ী। কিছুদূর খোঁড়ার পরই মাটির পাত্রে কোদালের আঘাত লাগার পর মাটি সরিয়ে জীবিত ওই নবজাতকের খোঁজ পান তিনি।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, শিশুটিকে জীবিত উদ্ধার করার পরপরই পুলিশকে খবর দেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের বরেলি জেলায় মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা সদ্যোজাত এখনও জীবিত আছে। প্রসঙ্গত, উদ্ধার হওয়া শিশুটি কন্যাসন্তান।

জানা গেছে, চাপা দেয়া মাটির ভেতর শিশুটির ছোট্ট ফুসফুস আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল অবশিষ্ট অক্সিজেনটুকু শুষে নেয়ার। হিতেশ কুমার সিরোহি নামের ওই ব্যক্তি তার সদ্যোজাত মৃত কন্যার কবর খুঁড়তে গিয়েই নবজাতক ওই জীবিত কন্যা শিশুর সন্ধান পায়।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, তারা ধারণা করছে শিশুটিকে জীবন্ত কবর দেয়ার মতো এই মর্মান্তিক ঘটনার সঙ্গে তার বাবা-মায়ের সম্পৃক্ততা রয়েছে। তারা ইতিমধ্যে নবজাতকের প্রকৃত বাবা-মায়ের সন্ধানে নেমেছে।

গ্রামবাসী কবর থেকে জীবিত কন্যাশিশুটি উদ্ধারের পর পুলিশকে খবর দিলে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। শিশুটি এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। চিকিৎসকরা বলছেন, অবস্থা এখন কিছুটা উন্নতির দিকে। তারা শিশুটিকে বাঁচাতে আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

বরেলির পুলিশ সুপার অভিনন্দন সিংহ জানিয়েছেন, শিশুটির চিকিত্সা চলছে। আগের থেকে অনেকটা শারীরিক উন্নতি হয়েছে তার। তার বাবা-মার খোঁজ চলছে। জীবন্ত শিশুকে কবর দেওয়র অপরাধে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, ভারতে এখনও অনেক স্থানে তীব্র লিঙ্গ বৈষম্য বিদ্যমান। দারিদ্রতার কারণে অনেক পরিবার এখনও মেয়ে সন্তানকে পরিবারের বোঝা মনে করে। এ কারণে নিষিদ্ধ থাকলেও অনেক স্থানে এখনও অবৈধভাবে কন্যা ভ্রুণ মেরে ফেলা হয়। এমনকী জন্মের পরও বিভিন্ন স্থানে কন্যা শিশু হত্যার ঘটনা ঘটে।

এই বিভাগের আরো খবর