সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রোহিঙ্গা ভোটার খতিয়ে দেখতে চট্টগ্রামে কবিতা খানম আগামী ১০মাসের রোডম্যাপ তৈরি ও তার বাস্তবায়ন করবো - জয় ও লেখক ডেঙ্গুতে সরকারি হিসেবে ৬৮ জনের মৃত্যু আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা ১৮ সেপ্টেম্বর বরিশাল নগরীতে আসছে স্মার্ট এলইডি লাইটিং বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ এ পি জে আব্দুল কালাম স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত শেখ হাসিনা টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ বরিশালকে যানজট মুক্ত রাখতে কাজ করছে ট্রাফিক সদস্যরা- ডিসি ট্রাফিক সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন : প্রধানমন্ত্রী বরিশালে কাজী নজরুল ইসলামের ৪৩তম প্রয়াণ বার্ষিকী অনুষ্ঠিত রাজশাহীর পুলিশ একাডেমিতে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী গণপরিবহনে মাসিক বেতনে চালক নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের সারদার পথে প্রধানমন্ত্রী
২৬১

‘ওজনে’ আসছে পরিবর্তন!

প্রকাশিত: ২৭ নভেম্বর ২০১৮  

ওজনের একক কিলোগ্রামের সংজ্ঞায় পরিবর্তন এনেছে ইন্টার্নেশনাল ব্যুরো অফ ওয়েট এন্ড মেজারস বা বিআইপিএম। ১৩০ বছর পর কিলোগ্রামের সংজ্ঞায় পরিবর্তন এনে সংস্থাটি বলছে, এর মাধ্যমে ওজন পরিমাপ আরো বেশি বৈজ্ঞানিক এবং নির্ভুল করা হলো। নতুন এই হিসেব কার্যকর হবে ২০১৯ সালের ২০ মে থেকে।

দোকান বা বাজারে পণ্য কেনাবেচা থেকে শুরু করে কারখানায় উৎপাদন সবকিছুই হয় ওজন মেপে। ওজন মাপায় কিলোগ্রাম দীর্ঘদিন ধরে প্রচলিত একটি মানদণ্ড। এই কিলোগ্রামের মান সারা বিশ্বে একই রকম এবং একই ধারণার।

 

1.‘ওজনে’ আসছে পরিবর্তন!

কিলোগ্রামের প্রথম প্রচলন হয় ১৮৮৯ সালে। যা প্লাটিনাম এবং ইরিডিয়াম ধাতুর সমন্বয়ে তৈরি এক ধাতব টুকরো। পিকে নামের এই টুকরোকে রাখা হয় বিআইপিএম-এর সদর দপ্তরে। বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থায় রাখা কিলোগ্রাম পিকে সময়ের পরিক্রমায় ওজন হারানোয় একে নির্ভুল করার প্রসঙ্গ আসে প্রায় ৩০বছর আগে। অবশেষে এটিকে অনুমোদন দেয়া হয় গত ১৬ নভেম্বর প্যারিসে অনুষ্ঠিত বিআইপিএম-এর এক সম্মেলনে।

বিআইপিএম-এর পরিচালক মার্টিন মিল্টন বলেন, ৩০ বছর দীর্ঘ সময়ে কঠিন পরিশ্রম এবং ৬০ জন বিজ্ঞানীর বিভিন্ন গবেষণাগারে নিরলস গবেষণার পর এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

কিলোগ্রামের নতুন সংজ্ঞা দিতে বিজ্ঞানীরা দ্বারস্থ হয়েছেন কোয়ান্টাম পদার্থবিদ্যার প্লান্ট কন্সটেন্টে। ওজন পরিমাপের সবচেয়ে নির্ভুল মেশিন কিবল ব্যালেন্সেরও সহায়তা নিয়েছে বিজ্ঞানীরা। ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক ফোর্স ব্যবহার করে একটি বস্তুর ভর বের করা হয় কনস্ট্যান্ট এককে।

যুক্তরাজ্যের জাতীয় ভৌত বিজ্ঞান ল্যাবরেটরির গবেষক পেড্রো উইলিয়াম বলেন, এটি সত্যিই একটি চমকপ্রদ ব্যাপার এবং আমাদের মতো গবেষকদের জন্য একটি বড় মুহূর্ত। এটি নতুন অনেক কাজের ব্যাপারে খুবই সহায়ক এবং সময়োপযোগী হবে।

মেইড টু মেজারস সেভেন ওয়ার্ল্ড ইউনিট-এর কিউরেটর ব্রুনো জ্যাকি বলেন, দৈনন্দিন জীবনে এটি তেমন কোনো প্রভাব ফেলবে না। ধরুন আপনি বাজারে আলু বা টমেটো কিনতে গিয়েছেন, সেখানে আপনি এটির পার্থক্য লক্ষ্য করতে পারবেন না। এটির পার্থক্য তখনই লক্ষ্য করা যাবে যখন অতি ক্ষুদ্র বিষয় নিয়ে গবেষণা করা হবে।

 

2.‘ওজনে’ আসছে পরিবর্তন!

প্রতিদিনের নিয়মিত কেনাবেচা বা বড় কোনো হিসেবে এটি তেমন কোনো পরিবর্তন না আনলেও বিজ্ঞানীরা বলছেন এটি নতুন সম্ভাবনার দ্বার খুলে দিবে। যেমনটা খুলেছিলো ১৯৬৭ সালের মিটার পদ্ধতির সংস্করণ বা মান পরিবর্তনের মাধ্যমে জিপিএস ও ইন্টারনেট প্রযুক্তির উদ্ভাবনে।

ব্রুনো জ্যাক আরো বলেন, এটা অনুমান করা কঠিন যে নতুন এই হিসেব পদ্ধতি কি ধরনের পরিবর্তন নিয়ে আসবে। তবে এটা বলতে পারি আলোর গতিতে যখন মিটারকে পরিমাপ করা হলো তারপরই জিপিএস পদ্ধতির সূচনা হয়। যা তার কিছুদিন আগেও চিন্তা করা কঠিন ছিলো। ঠিক তেমনি ঘটনা ঘটতে পারে কিলোগ্রামের এই নতুন হিসেবের ক্ষেত্রে।

অন্যান্য গবেষকরা বলছেন, এই ক্ষুদ্র হিসেবের প্রভাব পড়বে ওষুধ শিল্প থেকে শুরু করে উড়োজাহাজ কিংবা মহাকাশযান তৈরিতে।

এই বিভাগের আরো খবর