বুধবার   ১১ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬   ১৩ রবিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
মানবতাবিরোধী অপরাধে টিপু রাজাকারের মৃত্যুদণ্ড মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আব্দুস সাত্তার টিপুর রায় আজ পদ্মা সেতুর দুই হাজার ৭০০ মিটার দৃশ্যমান হবে আজ আন্তর্জাতিক পর্বত দিবস আজ দেশে এখন বিদ্যুতের ঘাটতি নেই : নসরুল হামিদ বিপু ইন্টারনেটে কিছু দেখেই বিশ্বাস করবেন না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সবাই মেহেরবানি করে ভালো কাজে যুক্ত হন : অর্থমন্ত্রী ‘শান্তির দূত’ থেকে যেভাবে গণহত্যার কাঠগড়ায় সু চি মিয়ানমারের বিরুদ্ধে সরব হওয়া কে এই আবুবাকার? রাত পোহালেই বঙ্গবন্ধু বিপিএল: মাঠের লড়াইয়ে যারা আন্তর্জাতিক আদালতের শুনানিতে মিয়ানমারকে গণহত্যা বন্ধের আহ্বান মানবসম্পদ উন্নয়নে ৫৪০ মিলিয়ন ডলার ঋণ প্রস্তাব এডিবির কোরআন শরিফের কপি বেশ পুরোনো হয়ে গেলে করণীয় এসকে সিনহার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল, সম্পদ জব্দ অনলাইনে নারী সরবরাহ, সিআইডির অভিযানে অ্যাডমিন গ্রেফতার একনেকে ৭ প্রকল্প অনুমোদন পয়েন্ট অব সেল মেশিনে সব নেটওয়ার্কে লেনদেন করা যাবে বরিশালে ২ খাবার হোটেলকে জরিমানা বাংলাদেশ জলসীমায় মাছ শিকার, ১৪ ভারতীয় জেলে আটক রোহিঙ্গা গণহত্যা : হেগের আদালতে বিচার করছেন যে বিচারকরা
১৩

এবার মোবাইল ব্যাংকিংয়ে দেওয়া যাবে আয়কর

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০১৯  

 

সারা দেশে সপ্তাহব্যাপী দশম জাতীয় আয়কর মেলা শুরু হতে যাচ্ছে আগামী বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর)। এবার করদাতারা যাতে দ্রুত আয়কর পরিশোধ করতে পারেন সেজন্য নগদ, রকেট, শিওর ক্যাশ, ইউপে ও বিকাশের মতো মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর)। 
রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের (এমএফএস) মাধ্যমে ই-পেমেন্ট সেবা দেওয়া হবে। এর ফলে করদাতারা খুব সহজেই মোবাইল ফোন ব্যবহার করে কর দিতে পারবেন।
মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- এনবিআরসহ আয়কর মেলা কমিটির সদস্যরা।
মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সীমিত পরিমাণ লেনদেন করা হয়। এ কারণে প্রান্তিক করদাতাদের সুবিধ‌ার্থে এ সেবা চালু করা হয়েছে। যেসব করদাতারা কম টাকার কর প্রদান করবেন তারা এই মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় উপকৃত হবেন।
এনবিআর চেয়ারম্যান জানান, মেলায় তিন হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।
‘সবাই মিলে দেব কর, দেশ হবে স্বনির্ভর’ এই স্লোগানে ১৪ নভেম্বর থেকে সারা দেশ ব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হবে। মেলা চলবে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকাসহ সব বিভাগীয় শহরে সাত দিন, জেলা শহরগুলোয় চার দিন, ৪৮ উপজেলায় দুই দিন এবং আট উপজেলায় দিনব্যাপী কর মেলা আয়োজন করবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।
এবার সব মিলিয়ে দেশের ১২০ স্থানে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে।
প্রতি বছরের ন্যায় করদাতাদের জন্য এবারও মেলায় কর বিবরণী থেকে শুরু করে পরিশোধের জন্য ব্যাংক ও বুথ থাকবে। করদাতারা শুধু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঙ্গে আনতে হবে। আর নতুন করদাতারা ইলেকট্রনিক কর শনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) নিতে পারবেন। মেলায় ই-পেমেন্টের জন্য পৃথক বুথ থাকবে। এছাড়া মেলায় মুক্তিযোদ্ধা, প্রবীণ, প্রতিবন্ধী ও নারী করদাতাসহ সেনাবাহিনীর সদস্যদের জন্য আলাদা বুথের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, যদি কারও আয় বছরে আড়াই লাখ টাকার বেশি হয়, তাহলে রিটার্ন দেওয়া বাধ্যতামূলক। আর নারীদের ক্ষেত্রে আয় বছরে তিন লাখ টাকার বেশি হলে রিটার্ন দেওয়া বাধ্যতামূলক। ব্যক্তি শ্রেণির করদাতার রিটার্ন জমার শেষ সময় ৩০ নভেম্বর। এ সময়ের মধ্যে রিটার্ন জমা না দিলে জরিমানার বিধান রয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর