সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৭ ১৪২৬   ২৩ মুহররম ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
পৃথিবীতে এত ধর্ম কেন? ৫০ হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদকবিক্রেতা আটক কাজাখস্তান গেলেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী দিনে ১০ হাজারের বেশি কনটেইনার হ্যান্ডেলিং হচ্ছে বন্দরে বিএনপির ৩ নেতাকে নিয়মিত টাকা দিতেন জি কে শামীম বরিশালে কারেন্ট জাল জব্দ, আটক ৩ এক মাসে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে ২০ লাখ : বিটিআরসি সেই ডিসির নারী কেলেঙ্কারির সত্যতা বাচ্চাকে মারধর করায় থানা ঘেরাও হনুমানের! জাতীয় নারী দাবায় শীর্ষস্থানে রানী হামিদ ইউজিসির কাঠগড়ায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ ভিসি ক্যাসিনোতে মিলল ধর্মীয় উপাসনা সামগ্রী! বিজয়নগর সায়েম টাওয়ার থেকে ১৭ জুয়ারী আটক ১৩ নেপালিকে মোটা অংকের বেতনে রাখা হয় জুয়া চালাতে স্পা সেন্টার থেকে আটক ১৬ নারী, ৩ পুরুষ আরও ১০ লক্ষ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান করা হবে- পলক আবুধাবি থেকে নিউইয়র্কের পথে প্রধানমন্ত্রী অজুহাতে কাজ আটকে রাখলে কঠোর ব্যবস্থা: গণপূর্তমন্ত্রী ব্যাংক নোটের আদলে টোকেন ব্যবহার করা যাবে না ঢাকা আসছেন বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও জাতিসংঘের দূত
২৩

উজিরপুরে মাদক মামলায় ২ জনের কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 


বরিশালের উজিরপুরে মাদক মামলায় দুই বিক্রেতাকে কারাদণ্ড দিয়েছেন পৃথক দু’টি আদালত। 
মঙ্গলবার (০৩ সেপ্টেম্বর) জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রফিকুল ইসলাম মাদক মামলায় খোকন সরদারকে সাত বছরে কারাদণ্ড দেন। পাশাপাশি তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে আরও ছয় মাসে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত খোকন মাদারীপুরের মাথাভাঙ্গা এলাকার মাজেদ সরদারের ছেলে।
এদিকে, বরিশালের বিভাগীয় বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মহসিনুল হক মাদক মামলায় প্রশান্ত বিশ্বাস ওরফে হৃদয়কে পাঁচ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন। পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে ছয়মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। হৃদয় বরিশালের উজিরপুর উপজেলার ধামুরা এলাকার মৃত নরেন চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় খোকন পলাতক থাকলেও হৃদয় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। 
আদালত সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি গৌরনদী টরকি বাসস্ট্যান্ড থেকে খোকনকে ১৪৮ পিস ও ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর উজিরপুর উপজেলার পশ্চিম ধামুরা গ্রাম থেকে হৃদয়কে ১০০ পিস ইয়াবাসহ আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা। এ ঘটনার পর র‌্যাবের ডিএডি আমজাদ হোসেন বাদী হয়ে গৌরনদী থানায় খোকনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। 
এদিকে র‌্যাবের ডিএডি মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে উজিরপুর থানায় হৃদয়ের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেন। পরে ২০১৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি গৌরনদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোশারেফ হোসেন খান ও ২০১৫ সালের ২৯ অক্টোবর উজিরপুর থানার এসআই গাজী শামসুর রহমান পৃথক ভাবে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে মামলা দু’টির বিচারকরা সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে পৃথক রায় দেন। 

এই বিভাগের আরো খবর