• বৃহস্পতিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৪ ১৪২৭

  • || ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আগে নিলে বলবে কাউকে দিলো না: প্রধানমন্ত্রী ৪০তম বিসিএসের ফল প্রকাশ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫২৮ দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী চাল আমদানির ফলে বাজার স্থিতিশীল হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী ৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী করোনার প্রথম টিকা নিলেন নার্স রুনু দেশে করোনা টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ৭ ফেব্রুয়ারি একযোগে টিকাদান কর্মসূচি শুরু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশে করোনায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ৫১৫ কারও ব্যবসায়িক স্বার্থে ভ্যাকসিন সংগ্রহ করেনি সরকার: কাদের দেশের প্রথম নৌপ্রধান ক্যাপ্টেন নুরুল হক আর নেই দেশে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চার লাখ ৮১ হাজার: কাদের শেখ হাসিনার আমলে কোন মানুষ গৃহহীন থাকবে না: শাহরিয়ার আলম বৈধ পথে বাড়ছে রেমিট্যান্স: পলক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৮, শনাক্ত ৬০২ চার ফিফটিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৯৭ সব জেলায় ৪-৫ দিনের মধ্যে ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে: পাপন দেশে পৌঁছেছে সেরামের ৫০ লাখ টিকা রমজানে টিসিবির পণ্য ৩ গুণ বাড়ানো হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

ইউএনওর হস্তক্ষেপে শিকল থেকে মুক্ত হয়ে হাসপাতালে মোহাম্মদ উল্লাহ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২০  

দুই বছর শিকল বন্দি থাকা মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তির চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা করে মানবিকতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বরিশাল জেলার হিজলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বকুল চন্দ্র কবিরাজ।

মানসিক ভারসাম্যহীন ওই ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ উল্লাহ।

হিজলা উপজেলার গুয়াবাড়িয়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অহিদুল আলম তালুকদার ছেলে মোহাম্মদ।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে স্থানীয়রা জানান, উচ্চ শিক্ষিত ও কয়েকবার বিদেশ ভ্রমণ করা মোহাম্মদ উল্লাহ গত দুই বছর ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ঘরের মধ্যে শিকলবন্দি অবস্থায় ছিলেন। দিনের পর দিন অনাহারে, অর্ধাহারে তার মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ার উপক্রম হচ্ছিলো।  

বিষয়টি হিজলা উপজেলা নির্বাহী ইউএনওর দৃষ্টিগোচর হওয়ার পর মানসিক ভারসাম্যহীন মোহাম্মদ উল্লাহর চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে আসেন ওই ইউএনও বকুল চন্দ্র কবিরাজ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বকুল চন্দ্র কবিরাজ জানান, উপজেলা প্রশাসন, থানা ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় বিষয়টি জানার পর গত ২২ নভেম্বর অ্যাম্বুলেন্সে করে পাবনা মানসিক হাসপাতালে পাঠানো হয় মোহাম্মদকে। পরবর্তীতে পাবনা উপজেলা ইউএনও সঙ্গে যোগাযোগ করে মোহাম্মদকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা শেষে মোহাম্মদ উল্লাহ স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে আসবে বলেও ইউএনও আশা প্রকাশ করেন।

অপরদিকে একজন মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে আসার জন্য উপজেলা ইউএনও বকুল চন্দ্র কবিরাজের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ওই ব্যক্তির স্বজনসহ স্থানীয়রা।