সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০   চৈত্র ১৬ ১৪২৬   ০৫ শা'বান ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
পিপিই যেন নষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় সরকার জনগণের পাশে আছে -প্রধানমন্ত্রী ছুটিতে কর্মস্থল ছাড়া যাবে না : সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন করোনা সংকটকালে জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ: কাদের আমি করোনায় আক্রান্ত হইনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত নেই : আইইডিসিআর পদ্মা সেতু‌তে বসলো ২৭তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৪ হাজার ৫০ মিটার করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সব পোশাক কারখানা বন্ধের নির্দেশ পবিত্র শবে বরাত ৯ এপ্রিল স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জনসমাগম করবেন না: প্রধানমন্ত্রী অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাবেন না : প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মুক্তি পেলেন খালেদা জিয়া সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ থেকে একসাথে দু`জন রাস্তায় হাঁটতে পারবে না জাতির উদ্দেশে আজ ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নিষেধাজ্ঞা অক্ষরে অক্ষরে পালন করুন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই খালেদা জিয়াকে মুক্তির সিদ্ধান্ত করোনা ছোঁয়াচে, এক মিটার দূরত্বে থাকার পরামর্শ
২০

ইউএনও`র হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ পণ্ড, কনের বাবাকে জরিমানা

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলায় ইউএনও'র হস্তক্ষেপে পণ্ড হলো বাল্যবিবাহ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটেছে উপজেলার হাটিলা পশ্চিম ইউনিয়নের টঙ্গিরপাড় নোয়াপাড়া গ্রামে। 

জানা গেছে, কনে পাশের শাহরাস্তি উপজেলার ইছাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। মেয়েটির টিকা কার্ড ও পঞ্চম শ্রেণি পাশের সার্টিফিকেট পরখ করে দেখা যায় ১৮ বছর পূর্ণ হতে এখনো তার অনেক সময় বাকী। এর পরও মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল তার পরিবার। কিন্তু খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিয়ে ভেঙ্গে দেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়া। 

এদিকে ইউএনও যাওয়ার পরেই স্কুল ছাত্রীটি বাবা-মা বাড়ি থেকে সটকে পড়ে। পরে তাঁর নির্দেশে বিয়ে বাড়ির অতিথিদের জন্য রান্না করা সকল খাবার পাশের গ্রাম লাওকরা হযরত আমানত শাহ ও শাহেনশাহ (রহ:) হাফিজিয়া মাদ্রাসায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে মেয়েটিকে একজন নারী চৌকিদারের মাধ্যমে নিজ গাড়িতে করে উপজেলায় নিয়ে আসেন ইউএনও বৈশাখী বড়ুয়া। পরে মেয়েটির পরিবারের লোকজন উপজেলা সদরে আসলে সেখানেই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ছাত্রীর বাবাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ইউএনও। এর পাশাপাশি ১৮ বছরের আগে মেয়েকে বিয়ে দিবেন না এমন শর্তে মুচলেকা আদায় করে বাবার জিন্মায় মেয়েটিকে বুঝিয়ে দেন তিনি।

আদালত পরিচালনাকালে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জলিলুর রহমান মির্জা দুলাল, থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) রমিজ উদ্দিনসহ অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বৈশাখী বড়ুয়া বলেন, ছাত্রীর বাবা দোষ স্বীকার করেন এবং ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেওয়ার অঙ্গীকার করে মুচলেকা শেষে ছাত্রীটিকে তার বাবার কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

এই বিভাগের আরো খবর