• শনিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১০ ১৪২৭

  • || ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ঢাকা শুধু বাসযোগ্য নয়, বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হবে: তাজুল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৪৩৬ সবার আগে আমি ভ্যাকসিন নেব : অর্থমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৬, শনাক্ত ৫৮৪ সার্জেন্টের ওপর হামলাকারী সেই যুবক গ্রেপ্তার পিকে হালদারের দুই সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে দুদক প্রতিক্রিয়াশীলতা বিএনপির রাজনৈতিক চরিত্র: কাদের সরকারের সাফল্যে বিএনপি উদ্ভ্রান্ত হয়ে গেছে : তথ্যমন্ত্রী বাইডেন কমলাকে রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন ঢাকায় পৌঁছে গেছে করোনার টিকা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে শুভ সূচনা টাইগারদের পৌর নির্বাচনে নৌকার বিপক্ষে গেলেই কঠোর ব্যবস্থা: কাদের রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা দিতে ভাসানচরে নতুন থানা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রথমে ঢাকায় টিকা কর্মসূচি শুরু হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিদ্রোহী প্রার্থীদের সঙ্গে কোনো আপস নয়: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৬, শনাক্ত ৬৯৭ কাউন্সিলর মৃত্যুর ঘটনায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনা হবে: কাদের হাতিয়ায় বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও ভিডিও: ৫ জন গ্রেফতার ২৬ জানুয়ারির মধ্যে সেরামের টিকা আসবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় চলচ্চিত্র নির্মাণের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

আমরা বেপরোয়া হয়ে চলাফেরা করছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০২০  

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনার দ্বিতীয় সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রথম কারণ হলো আমরা স্বাস্থ্যবিধি মানছি না। আমরা বেপরোয়া হয়ে চলাফেরা করছি, আমরা মাস্ক পরছি না—আমাদের বেশি আত্মবিশ্বাস হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, শীতকালে বিভিন্ন রকম অনুষ্ঠান হয়। কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে লাখ লাখ মানুষ ঘুরে বেড়াচ্ছে। সেখান থেকে সংক্রমণ বাড়ছে।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে যে কোনো সময় সংক্রমণ বৃদ্ধি পেতে পারে।

বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) ও করোনা রোগীর চিকিৎসায় শয্যা দ্বিগুণ করার পরামর্শ দেন তিনি।

রোববার (২৯ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা ও ভ্যাকসিন বিষয়ক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন তিনি।

জাহিদ মালেক বলেন, শীতকালে বিভিন্ন রকম রোগ বালাই হয়। এ রোগ বালাইয়ের কারণে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পেতে পারে। এছাড়া শীতকালে বিভিন্ন রকম অনুষ্ঠান হয়। এগুলোর জন্য সংক্রমণ বৃদ্ধি পেতে পারে।

বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোর কর্তৃপক্ষের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা যেভাবে প্রথম সংক্রমণ মোকাবিলা করেছেন; একই সঙ্গে কোভিড, নন কোভিড ও ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। ঠিক একইভাবে করোনার দ্বিতীয় সংক্রমণ মোকাবিলায় কাজ করবেন। একই সঙ্গে কোভিড, নন কোভিড ও ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসার দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি রাখতে হবে। এখন থেকেই সেই প্রস্তুতি নেন।

তিনি বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদিত যে কোনো ভ্যাকসিন বাজারে এলে আমরা প্রথম ধাপে পাব। সরকারি হাসপাতালে যদি টিকা দেওয়া হয় তাহলে প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচাল আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, পৃথিবীতে যদি ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়, বাংলাদেশের মানুষ যদি ভ্যাকসিন পায় তাহলে অবশ্যই সবাই সেই ভ্যাকসিন পাবেন। তবে সময় লাগবে।

দেশে করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য পরীক্ষার সংখ্যা বৃদ্ধি করতে বেসরকারি হাসপাতালে পরীক্ষার ফি কমানোর অনুরোধ জানান তিনি।

এ সময় আরো বক্তব্য দেন স্বাস্থ্য শিক্ষা সচিব মো. আলী নুর, বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিক্যাল কলেজ অ্যাসোসিয়েশনের (বিপিএমসিএ) সভাপতি এম এ মতিন খান ও সাধারণ সম্পাদক ডা. আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।