বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ধর্ষকদের ধরিয়ে দিন, কঠোর ব্যবস্থা নেবো: প্রধানমন্ত্রী টাকা না থাকলে এত উন্নয়ন কাজ করছি কীভাবে : প্রধানমন্ত্রী সব ব্যথা চেপে রেখে দেশের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেনে খোলা খাবার বিক্রি ও প্লাস্টিকের কাপ নিষিদ্ধ হচ্ছে চলতি বছরে জিপিএ-৪ কার্যকর হচ্ছে মজুদ গ্যাসে চলবে ২০৩০ সাল পর্যন্ত : খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী গুজব-অপপ্রচার রোধে কাজ করছে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি : তথ্যমন্ত্রী সব কারখানায় ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার স্থাপনের নির্দেশ আজ বাংলাদেশ-নেপাল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক সরকার-জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করতে সাংসদের রাষ্ট্রপতির আহ্বান দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে : নাসিম ব্যাংকের জঙ্গি অর্থায়ন নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী নয় বছরে সাড়ে ৯৭ হাজার কর্মকর্তা নিয়োগ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দেশে মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশনের মাত্রা ক্ষতিকর নয় : বিটিআরসি সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ২০ বছর পর আজ ঢাকায় আসছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন
৫৪

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা বিল পাস

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ইউনেস্কোর প্রতিনিধিসহ সদস্য রাষ্ট্রের প্রতিনিধিদের পরিচালনা বোর্ডে অন্তর্ভুক্তির বিধান রেখে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল-২০১৯’ পাস করা হয়েছে। এই আইনে প্রতিষ্ঠান প্রধানের পদ মহাপরিচালক থেকে পরিচালক হিসেবে অবনমিত করা হয়েছে।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাতে জাতীয় সংসদে বিলটি পাস হয়। এ সময় ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়া সভাপতিত্ব করেন। 

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির পক্ষে বিলটি পাস করার প্রস্তাব করেন শিক্ষা-উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। এর আগে বিলটি পাসের বিরোধিতা করেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মো. ফখরুল ইমাম। তবে তার আপত্তি গ্রহণ করেনি সংসদ। বিলের ওপর আনীত সংশোধনী, বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও জনমত যাচাইয়ের প্রস্তাবগুলো কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। ইউনেস্কোর সঙ্গে বাংলাদেশের স্বাক্ষরিত চুক্তির শর্ত অনুযায়ী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের প্রধানের পদবি ও পরিচালনা বোর্ডের গঠন কাঠামো সংশোধনের আবশ্যকতা দেখা দেওয়ায় বিলে বিদ্যমান আইনের সংশোধনী প্রস্তাব আনা হয়েছে। বিলের ৮ ধারা সংশোধনী এনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের পরিচালনা বোর্ডে চেয়ারম্যান পদে শিক্ষামন্ত্রী বা তার প্রতিনিধিকে চেয়ারম্যান করা হয়েছে। 

এছাড়া পরিচালনা বোর্ডে বাংলাদেশ ইউনেস্কো জাতীয় কমিশনের মহাসচিব বা তার প্রতিনিধি, সংস্কৃতি সচিব বা তার প্রতিনিধি, ইউনেস্কোর সদস্য রাষ্ট্রগুলোর প্রতিনিধি, ইউনেস্কোর মহাপরিচালক মনোনীত প্রতিনিধিকে অন্তর্ভুক্তির প্রস্তাব করা হয়েছে। 

বিলে কমিটি সদস্যদের দায়িত্ব পালনের কার্যকাল তিন বছর করারও প্রস্তাব করা হয়। এছাড়া বিলে মূল আইন অনুযায়ী মহাপরিচালকের অনুপস্থিতিতে জ্যেষ্ঠ অতিরিক্ত পরিচালককে অথবা সরকার মনোনীত কোনো ব্যক্তিকে অস্থায়ীভাবে প্রতিষ্ঠানের প্রধানের দায়িত্ব দেওয়ার বিধানেরও প্রস্তাব করা হয়েছে। 

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২০১০ সালের আইনে প্রতিষ্ঠিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম আরও গতিশীল এবং এটিকে আন্তর্জাতিকমানে উন্নীতকরণের লক্ষ্যে ইউনেস্কোর পরিবর্তিত সংজ্ঞা প্রতিস্থাপন এবং ইনস্টিটিউটের পরিচালনা বোর্ডে ইউনেস্কো মহাপরিচালকের প্রতিনিধিকে অন্তুর্ভুক্তি করে আইনটি ২০১৩ সালে সংশোধন করা হয়। এরমধ্যে ২০১৬ সালে ইনস্টিটিউট ইউনেস্কোর ক্যাটাগরি-২ প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা লাভ করেছে। 

সেই পরিপ্রেক্ষিতে ইউনেস্কোর সঙ্গে বাংলাদেশের একটি চুক্তি হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী ইনস্টিটিউটের পরিচালক হবেন পরিচালনা বোর্ডের সদস্য সচিব। চুক্তির শর্ত অনুসারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের প্রধানের পদবি ও পরিচালনা বোর্ডের গঠন কাঠামো সংশোধনের আবশ্যকতা দেখা দিয়েছে। ফলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট (সংশোধন) আইন-২০১৯ বিল আকারে সংসদে উপস্থাপন করা হল।

এই বিভাগের আরো খবর