• শনিবার   ৩১ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১৫ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
কারিগরি-জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা হবে : শিক্ষামন্ত্রী ১২ বছরে ৪৫০ কিলোমিটার মহাসড়ক ৪ লেনে উন্নীত: কাদের রায়হান হত্যা: এএসআই আশেক এলাহী গ্রেফতার করোনার কারণে ২০২১ সালে হবে না বই উৎসব: শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত ব্লকচেইন আগামী প্রযুক্তির নিরাপদ ভিত্তি: পলক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৩, শনাক্ত ১৪৯৩ স্কুল বাস সার্ভিসে নারী চালক সম্পৃক্ত করা জরুরি: সেতুমন্ত্রী দেশের মানুষের ভরসা ও বিশ্বাসের প্রতীক সেনাবাহিনী: প্রধানমন্ত্রী ৩ দিনের রিমান্ডে ইরফান ও সহযোগী জাহিদ প্রকল্পের বিরুদ্ধে মামলা হলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২০, শনাক্ত ১৩৩৫ রিফাত হত্যা: অপ্রাপ্তবয়স্ক ৬ জনের ১০ বছরের কারাদণ্ড হাজী সেলিমের ছেলের ১ বছরের কারাদণ্ড করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৫, শনাক্ত ১৪৩৬ সাংসদ হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান গ্রেপ্তার কেউ অপরাধ করলে তাকে আইনের মুখোমুখি হতে হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিল মালিক, পাইকার ও ফড়িয়ারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত: কৃষিমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৩, শনাক্ত ১৩০৮ পদ্মা সেতুতে বসলো ৩৪তম স্প্যান

অকাল মৃত্যু ডেকে আনছে যেসব খাবার

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৯ জুলাই ২০২০  

প্রতি বছর এক কোটিরও বেশি মানুষ মারা যাচ্ছে শুধু খাবারের কারণে, এক সমীক্ষায় এমনটাই দেখা গেছে। এমনকি কিছু কিছু খাবার ধূমপানের চেয়েও বেশি প্রাণহানি ঘটায়!

‘দ্যা গ্লোবাল বার্ডেন অফ ডিজেস স্টাডি’ নামের এক গবেষণায় উঠে এসেছে শুধু মাত্র খ্যাদ্যাভ্যাসের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে মারা যাওয়ার মানুষের আনুপাতিক সংখ্যা। গবেষকরা বলছেন, শুধু মাত্র স্থূলতা নয় বরং নিম্নমানের খাদ্যাভ্যাসের কারণে হার্ট অ্যাটাক বা ক্যানসারের মতো জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ।

ওই গবেষণা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ একটি পর্যবেক্ষণ; যেখানে দেখা হয়েছে কিভাবে বিশ্বের প্রতিটি প্রান্তে মানুষ মারা যাচ্ছে। বিপজ্জনক খাদ্য হিসেবে যেসব উপাদানের কথা বলা হচ্ছে—

  • ১. অতিরিক্ত লবণ- ৩০ লাখ মানুষের মৃত্যুর কারণ
  • ২. কম দানাদার শস্য খাওয়া- ৩০ লাখ মানুষের মৃত্যুর কারণ
  • ৩. ফলমূল কম খাওয়া- ২০ লাখ মানুষের মৃত্যুর কারণ

আমরা কী সঠিক খাবার সঠিক পরিমাণে খাচ্ছি- এটিই এখন বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিছু খাবার প্রয়োজনের চেয়ে অনেক বেশি খেয়ে ফেলছি, আবার  অনেক সময়ে খাচ্ছিই না। যেমন বাদাম, বীজ, শাক-সবজী, সামুদ্রিক থেকে পাওয়া ওমেগা-৩ এবং আঁশ জাতীয় খাবারের পরিমাণ কম হওয়াটাও মৃত্যুর বড় কারণগুলোর অন্যতম।

বাদাম ও বীজ জাতীয় খাবার মানুষ গড়ে প্রতিদিন দিনে ২৩ গ্রাম কম খাচ্ছে। আবার দুধ খাওয়া উচিত ৪৪৩ গ্রাম অথচ মানুষ গ্রহণ করছে ৭১ গ্রাম। একইভাবে দানাদার শস্য জাতীয় খাবার ১২৬ এর জায়গায় ২৯ গ্রাম খাচ্ছে। মাংস ২২ গ্রাম খাওয়া উচিত হলেও সেটি খাচ্ছে ২৭ গ্রাম, লবণ ৩.২ গ্রামের ওপর খাওয়া উচিত নয় কিন্তু সেটি গ্রহণ করছে ৬ গ্রাম!

অকাল মৃত্যু ডেকে আনতে না চাইলে সুস্থ থাকতে হবে। আর সুস্থ থাকতে পরিমিত খাবার গ্রহণ করতে হবে। যা বর্তমান সময়ে সবচেয়ে চিন্তার বিষয়!